Select your Top Menu from wp menus

২২৫ টাকা জনপ্রতি পানি ও স্যানিটেশন খাতে বাজেট চাহিদা

index
indexসহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে পানি ও স্যানিটেশন খাতে জনপ্রতি ২৮২ টাকা বরাদ্দের কথা থাকলেও এ খাতে জনপ্রতি চাহিদা রয়েছে ২২৫ টাকা। এ ক্ষেত্রে স্থানীয় চাহিদার ভিত্তিতে সুষ্ঠু পরিকল্পনার মাধ্যমে কার্যক্রম বাস্তবায়ন, অংশগ্রহণ ও মনিটরিংকে গুরুত্ব দিতে হবে বলে ইউনিয়ন পর্যায়ের প্রাক-বাজেট আলোচনায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

ওয়াস বাজেট নিয়ে কাজ করা বেসরকারী সংস্থা ডরপ এ বিষয়ে আরো জানায়, বাজেটকে কেন্দ্র করে জাতীয় পর্যায়ে বাজেট পূর্ব বিভিন্ন শ্রেণী পেশার সাথে অল্প বিস্তর আলোচনা হলেও গ্রামীণ জনপদের উন্নয়ন কেন্দ্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট নিয়ে আলোচনার চর্চা তেমন হয়না। অথচ দেশের ৪৪৯৮টি ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট প্রণয়ন প্রক্রিয়ায় জনগণের অংশগ্রহণের মাধ্যমে চাহিদা গ্রহণ এপ্রিল থেকে মে মাসের মধ্যে করার কথা সরকারীভাবে ঘোষণাকৃত।

সমপ্রতি দেশের ৬টি উপজেলার ২৪টি ইউনিয়নে পানি ও স্যানিটেশন খাত নিয়ে এ প্রাক বাজেট আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। ডরপ এ প্রাক-বাজেট আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

প্রাক-বাজেট আলোচনায় স্থানীয়দের আগামী ২০১৪-১৫ অর্থবছরের জন্য পানি, স্যানিটেশন ও পয়:পরিচ্ছন্নতার জন্য লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার ৪টি (চরপোড়াগাছা, চর বাদাম, চর আলগী, ও চর আলেক্সজান্ডার) ইউনিয়নের জন্য ৬১ লক্ষ ১২ হাজার ২৫০ টাকা, টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ৩টি (গোবিন্দাসী, অলোয়া, ও নিকরাইল) ইউনিয়নের জন্য ৭৯ লাখ ৪১ হাজার, কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার ৩টি (ছয়সূতী, ওসমানপুর, ও সালুয়া) ইউনিয়নের জন্য ৮৩ লাখ ৮৮ হাজার, বরগুনা সদর উপজেলার ৫টি (গৌরিচন্না, বরগুনা সদর, বদরখালি, ফুলঝুরি, ও আয়লাপাতাকাটা) ইউনিয়নে ৩ কোটি ৩৮ লাখ ২৪ হাজার, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ৫টি (সয়দাবাদ, বহুলি, শিয়ালকোল, কালিয়াহরিপুর, ও বাগবাটি) ইউনিয়নে ১ কোটি ৬৭ লাখ ০৫ হাজার ২৫০ টাকা ও বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার ৪টি (লখপুর, ফকিরহাট, বেতাগা, ও পিলজং) ইউনিয়নে ১২ কোটি ৬০ লাখ ৬৫ হাজার ৫০০ টাকার চাহিদা রয়েছে।

৬টি উপজেলার ২৪টি ইউনিয়নের মোট জনসংখ্যা ৮ লক্ষ ৮৬ হাজার ১৬৫ জন। চলতি অর্থ বছরে ২৪টি ইউনিয়নের স্থানীয়দের মোট চাহিদা ১৯ কোটি ৯০ লাক্ষ ৩৬ হাজার টাকা। যার মধ্যে, গভীর নলকূপ ১৬৭টি, অগভীর নলকূপ ৬০১৩টি, স্বাস্থ্যসম্মত ল্যাট্রিন ১৩৮৭০, গণশৌচাগার ১৫৪৯, এবং ৮১টি নলকূপ মেরামত করার দাবী উঠে আসে।

এ বিষয়ে ডর্‌প এর গবেষণা প্রধান মোহাম্মদ যোবায়ের হাসান জানান, বাজেট আলোচনায় গ্রামীণ জনপদের মানুষের চাহিদার কথা উঠে এসেছে। এ জন্য তিনি সরকারকে স্থানীয় চাহিদার ভিত্তিতে এ খাতে বাজেট বরাদ্দ করার আহবান জানান।

প্রাক-বাজেট আলোচনা সভাগুলোতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সচিব, সদস্য, উপসহকারী প্রকৌশলী, ওয়াশ এনজিও নেটওয়ার্ক এর সদস্য, বাজেট মনিটরিং ক্লাবের সদস্য, হেলথ ভিলেজ গ্রুপের সদস্য, শিক্ষক, এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তি বর্গ উপস্থিত ছিলেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *